রোহিঙ্গা শিশুদের জন্য ইউনিসেফের জরুরি সহায়তা কক্সবাজারের পথে

কক্সবাজার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ – হাজার হাজার রোহিঙ্গা শিশুর জন্য জরুরি পানি, পয়ঃনিষ্কাশন ও হাইজিন সামগ্রী বোঝাই ইউনিসেফের ট্রাক কক্সবাজার যাচ্ছে। সামনের দিন ও সপ্তাহগুলোতে এ ধরনের আরও সামগ্রী সেখানে সরবরাহ করা হবে।

গত ২৫ আগস্ট থেকে প্রায় ৪ লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে এসেছে। আরও হাজার হাজার রোহিঙ্গা প্রতিদিনই আসছে। প্রাথমিক হিসাব অনুযায়ী, এদের প্রায় ৬০ শতাংশই শিশু। এই শরণার্থীদের চাপে বিদ্যমান শরণার্থী ক্যাম্পগুলো উপচে পড়ছে। ফলে নতুন আগত শরণার্থীরা যেখানে পারছে সেখানেই আশ্রয়ের জায়গা খুঁজছে।

ইউনিসেফ বাংলাদেশের প্রতিনিধি এডুয়ার্ড বেগবেদার বলেছেন, “সেখানে সবকিছুরই তীব্র সংকট রয়েছে, বিশেষ করে আশ্রয়, খাদ্য ও খাবার পানির। শিশুরা পানিবাহিত রোগের বড় ঝুঁকিতে রয়েছে। অত্যন্ত ঝুঁকির মুখে থাকা এই শিশুদের রক্ষা করার বিরাট দায়িত্ব আমাদের সামনে।”

পাঠানো সামগ্রীর মধ্যে ডিটারজেন্ট পাউডার, সাবান ও পানি রাখার জন্য কলস ও জগ ছাড়াও বাচ্চাদের ন্যাপকিন, স্যানিটারি ন্যাপকিন, তোয়ালে ও স্যান্ডেল রয়েছে। এছাড়া ইউনিসেফ সেখানে পানি বিশুদ্ধকরণ প্ল্যান্ট স্থাপনে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগকে সহায়তা করছে এবং মাঠ পর্যায়ে অগভীর নলকূপ (টিউব ওয়েল) স্থাপন ও মেরামতে অংশীদারদের সঙ্গে কাজ করছে।

বেগবেদার আরও বলেন, “বাংলাদেশে ক্রমেই বাড়তে থাকা রোহিঙ্গা শিশুদের জন্য ইউনিসেফের জরুরি সহায়তা ব্যাপকভাবে বাড়াতে ধারাবাহিকভাবে যেসব সামগ্রী পাঠানো হবে তারই অংশ হিসেবে প্রথম ধাপে ওইসব সামগ্রী পাঠানো হয়েছে।”

আগামী চার মাসে রোহিঙ্গা শিশুদের জরুরি সহায়তা প্রদানে ৭ দশমিক ৩ মিলিয়ন ডলারের সাহায্যের আবেদন জানিয়েছে ইউনিসেফ।

 
Search:
For every child
Health, Education, Equality, Protection
ADVANCE HUMANITY
Search: